I move my blog to foisal.com

অবশেষে অনেক দিনের ইচ্ছা পূরণ হল। ওয়ার্ডপ্রেস .কম এর বাইরে আলাদা হোস্টিং সার্ভারে ব্লগটি রাখার ইচ্ছা ছিল অনেক দিনের। এখন থেকে ইচ্ছা মত ওয়ার্ডপ্রেস কে মডিফাই করতে পারবো , পছন্দের থিম ব্যাবহার করতে পারবো।

ভালোই লাগছে……..

এখন থেকে আমার নতুন পোষ্ট গুলো এখান থেকে দেখতে পাবেন

http://www.foisal.com/

Advertisements

Add feature in wordpress default editor

আপনি ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগে লগইনের পরে যা দিয়ে ব্লগ লিখেন তাই হচ্ছে এডিটর। এডিটরটির নাম হচ্ছে TinyMCE editor । এটি একটি জনপ্রিয় WYSIWYG এডিটর। এটি ওয়ার্ডপ্রেস ছাড়াও অন্যান্য ব্লগে CMS ( content Management System) এ এডিটর হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

যাই হোক ওয়ার্ডপ্রেসের যেই ডিফল্ট এডিটর আছে তাতে সাধারনত এডিটরটির সকল ফিচার বা অপশন by default হিসেবে থাকেনা । আপনি চাইলে পরে সেগুলো এ্যাকটিভেট করতে পারেন। এডিটরের ফাইলে কিছু কোড যুক্ত করেই। ভয় পাবেন না তেমন কঠিন কিছুই না। আর অপশনগুলো যেমন ধরুন ফন্ট সাইজ ছোট বড় করা,ফোরগ্রাউনড বা ব্যাকগ্রাউন্ড কালার,ফন্ট সিলেক্ট সহ আরো ফরমেটিং অপশন।

আসুন তবে দেখাযাক কিভাবে করবেন এটি

এখন আপনার ওয়েবসার্ভারে রাখা ওয়ার্ডপ্রেসের ফাইল ফোল্ডারগুলোর মধ্যে wp-includes > js > tinymce > ফোল্ডারে গিয়ে tiny_mce_gzip.php ফাইলটি নোটপ্যাড বা অন্য এডিটর দিয়ে খুলুন। খোরার পর দেখুন এই লাইন গুলো পান কিনা-

1. $mce_buttons = apply_filters(‘mce_buttons’, array(‘bold’, ‘italic’, ‘strikethrough’, ‘separator’, ‘bullist’, ‘numlist’, ‘outdent’, ‘indent’, ‘separator’, ‘justifyleft’, ‘justifycenter’, ‘justifyright’ ,’separator’, ‘link’, ‘unlink’, ‘image’, ‘wordpress’, ‘separator’, ‘undo’, ‘redo’, ‘code’, ‘wphelp’));
2. $mce_buttons = implode($mce_buttons, ‘,’);
3. $mce_buttons_2 = apply_filters(‘mce_buttons_2’, array());
4. $mce_buttons_2 = implode($mce_buttons_2, ‘,’);
5. $mce_buttons_3 = apply_filters(‘mce_buttons_3’, array());
6. $mce_buttons_3 = implode($mce_buttons_3, ‘,’);

এখান থেকেই আপনি এডিটরে বিভিন্ন অপশন বা বাটন যুক্ত করতে পারবেন।

এখানে প্রথম $mce_buttons = apply_filters(‘mce_buttons’, array(‘bold’, ‘italic’,………………)
এখানে যে অপশনগুলির নাম দেয়া আছে সেগুলো ইতিমধ্যেই এডিটরে দেখা যাচ্ছে, যেমন বোল্ড ইটালিক সহ বাকি গুলো। তবে আরো অতিরিক্ত অপশনগুলো এ্যাড করতে হলেঃ

ধরুন আপনি এডিটরে একটি নতুন অপশন যুক্ত করতে চান যার মাধ্যমে আপনি এডিটর থেকেই লেখার সাইজ ছোট বড় করতে পারবেন। এখন শুধু আপনাকে সেই অপশনটির নাম যুক্ত করে দিতে হবে । যেমন লেখার সাইজ ছোটবড় করার জন্য ‘fontsizeselect’ লেখাটি প্রথম

$mce_buttons = apply_filters(‘mce_buttons’, array(‘bold’, ‘italic’, ‘strikethrough’, ‘separator’, ‘fontsizeselect’, ‘bullist’, ‘numlist’……………………’));

এর ‘separator’, এর পরে ‘fontsizeselect’, দুটো কোটেশন মার্কের মধ্যে কমা সহ দিয়ে দিলামঃ

এখন দেখতে পাচ্ছেন বোল্ড , ইটালিক,strikethrough এবং সেপারেটরের পরেই নতুন মেনু দেখতে পাচ্ছেন (ঠিক কোডে যেমনটি দেওয়া হয়েছিল) যার মাধ্যমে আপনি লেখা ছোট বড় করতে পারবেন। এ রকম আরো কিছু কোড শব্দ আছে যা দিয়ে একই ভাবে এডিটরটিতে নতুন অপশন এ্যাড করা যাবে। কোড গুলো পরে দিচ্ছি তার আগে আরো কিছু বিষয় বলে নেইঃ

উপরের কোড গুলোতে
$mce_buttons_ সহ কয়েকটি লাইন রয়েছে। সেগুলোর মধ্যে যেই লাইনগুলোতে

$mce_buttons_2 = apply_filters(‘mce_buttons_2’, array());

আছে অর্থাৎ ‘apply_filters’ সহ সেগুলোর array() এর ব্রাকেট এর ভেতর একই ভাবে ফিচার সমূহের কোড যুক্ত করে দিলে এডিটরে তা দেখা যাবে তবে দ্বিতীয় লাইনে

ছবিটি দেখুনঃ

আমি তিন নম্বর লাইনে কিছু কোড যুক্ত করে দিয়েছি

$mce_buttons_2 = apply_filters(‘mce_buttons_2’, array(‘newdocument’, ‘backcolor’));

তাই ছবিটিতে দেখছেন দ্বিতীয় লাইনে আরো দুটি অপশন দেখা যাচ্ছে। তবে মনে রাখবেন apply_filters যেটাতে আছে সেই লাইনেই array() এর ব্রাকেট এর ভেতরে কোড দিতে হবে। এবার জানিয়ে দেই কোড গুলোঃ

‘bold’, ‘italic’, ‘underline’, ‘strikethrough’, ‘justifyleft’, ‘justifycenter’, ‘justifyright’, ‘justifyfull’, ‘bullist’, ‘numlist’, ‘outdent’, ‘indent’, ‘cut’, ‘copy’, ‘paste’, ‘undo’, ‘redo’, ‘link’, ‘unlink’, ‘image’, ‘cleanup’, ‘help’, ‘code’, ‘hr’, ‘removeformat’, ‘formatselect’,
‘fontselect’, ‘fontsizeselect’, ‘styleselect’, ‘sub’, ‘sup’, ‘forecolor’, ‘backcolor’, ‘charmap’, ‘visualaid’, ‘anchor’, ‘newdocument’, ‘separator’,

তথ্যসূত্র

এখন খেয়াল রাখবেন এধরনের কোন কাজ করার আগে “tinymce” ফোল্ডারটির tiny_mce_gzip.php ফাইলের একটি ব্যাকআপ কপি রেখে দেবেন। পরে সমস্যা হলে শুধু রিপ্লেস করে দেবেন।

How to apply bangla language in wordpress

আপনি যদি আপনার ওয়েবসার্ভারে ওয়ার্ডপ্রেস ইনস্টল করে থাকেন ( ইন্সটলেশন গাইড ) তবে আপনি চাইলে আপনার ওয়ার্ডপ্রেসে অন্য কোন ভাষা বা বাংলা ভাষা ব্যবহার করতে পারেন। ওয়ার্ডপ্রেসের ইন্টারফেসের বিভিন্ন ভাষার ট্রান্সলেশনে ব্যবহৃত হয় .PO(Portable Object) এবং .MO(Machine Object) ফাইল। এই ফাইল গুলো হচ্ছে ওয়ার্ডপ্রেসের Language ফাইল। এতে ওয়ার্ডপ্রেসে ব্যবহৃত শব্দগুলো ইংরেজীতে দেয়া আছে। যা .po ফাইলের জন্য বিশেষ কিছু এডিটর দিয়ে অন্যান্য ভাষায় অনুবাদ করা যায়।এমন একটি এডিটর হচ্ছে poEdit ডাউনলোড করতে পারেন এখান থেকে। ওয়ার্ডপ্রেসের অফিশিয়াল ল্যাঙ্গুয়েজ ফাইল wordpress.pot ডাউনলোড করতে পারেন এখান থেকে ।

পো -এডিট সম্পর্কে বিস্তারিত পরে বলব। এখন শুধু জানাবো এই লোকালাইজড বা অনুবাদকৃত ফাইলগুলো কি করে আপনার ওয়ার্ডপ্রেসে ব্যবহার করবেন।

http://codex.wordpress.org/WordPress_in_Your_Language

এখানে বিভিন্ন ভাষার ওয়ার্ডপ্রেস ল্যাঙগুইজ ফাইল আছে। সেখানে Bangla – Bengali নামে বাংলা WordPress Language ফাইলের জন্য লিন্ক দেখতে পাবেন। হ্যা ওয়ার্ডপ্রেস কে মেঘদূত নামের প্রজেক্টে বাংলায় লোকালাইজ করা হয়েছে। সেখান থেকে প্রথম লিন্ক Bengali localization of wordpress. Project Code: Meghdut ক্লিক করুন তাহলে দুটো ফাইল দেখতে পাবেন bn.mobn.po
এদুটোই ওয়ার্ডপ্রসের বাংলা Language ফাইল। bn.mo হচ্ছে কম্পাইলকৃত language ফাইল যেটা আমরা ওয়ার্ডপ্রেস কে বাংলায় দেখতে ব্যবহার করবো , আর bn.po ও language ফাইল যেটা দ্বারা অনুবাদ করা হয়েছে এবং bn.mo ফাইল টি তৈরী করা হয়েছে।
আপনি চাইলে poEdit দিয়ে bn.po ফাইলটি খুলে পূর্বে অনুবাদকৃত বাংলা গুলো পরিবর্তন করতে পারবেন।


এবার আসা যাক বাংলা Language ফাইলটি আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগে ইনস্টলেশন পর্বেঃ

এখন এফটিপি ক্লায়েন্টের মাধ্যমে আপনার ওয়েবসার্ভারে রাখা ওয়ার্ডপ্রেস ফাইল দেখুন। সেখান থেকে wp-includes ফোল্ডারে যান। সেখানে languages” নামে একটি ফোল্ডার তৈরী করুন। এবার সেই languages ফোল্ডারের ভিতরে bn.mo ফাইলটি কপি করুন।কপি হয়ে গেলে ওয়ার্ডপ্রেসের মূল ফোল্ডারে ফিরে আসুন। এবার সেখান থেকে wp-config.php ডাউনলোড করে ফাইলটি খুলুন ।

/ Change this to localize WordPress. A corresponding MO file for the
/ chosen language must be installed to wp-includes/languages.
/ For example, install de.mo to wp-includes/languages and set WPLANG to ‘de’
/ to enable German language support.
define (‘WPLANG’, ‘bn’);

উপরোক্ত কোড দেখতে পাবেন সেখানে একটি লাইনে define (‘WPLANG’, ”); কোড দেয়া থাকবে সেখানে ‘ ‘ এই দুটো মার্কের মধ্যে bn লিখে দিন।

এক্ষেত্রে মনে রাখবেন আপনার language ফাইলনেম যদি হয় bn.mo বা en.mo তবে শূধু নামটাই bn উপরের কোডে উল্যেখ করতে হবে। এক্সটেনশন সহ নয়।

এবার wp-config.php ফাইলটি সেভ করুন । তারপর আপনার সার্ভারে রাখা wp-config.php ফাইলের সাথে এই ফাইলটি রিপ্লেস করে দিন। ব্যাস কাজ হয়ে গেছে এবার আপনার ব্লগে বা লগইন করে এ্যাডমিনিস্টেশন প্যানেলে গিয়ে দেখুন বাংলা দেখতে পাচ্ছেন কিনা।

উল্ল্যেখ্য সকল বাংলা অনুবাদ ইউনিকোডে করা হয়েছে।

আমার লোকালসার্ভারে হোস্ট করা ওয়ার্ডপ্রেসের কিছূ স্ক্রিনশট দিলামঃ

চিত্রঃ লগইন উইন্ডো

চিত্রঃ ওয়ার্ডপ্রেস এডিটর

চিত্রঃ অপশন

চিত্রঃ ইউজারস্