অনলাইন ফ্রিল্যান্স আউটসোর্সিং এর মাধ্যমে আয় করুন ঘরে বসেই

আউটসোর্সিং বলতে আমরা মুলত বুঝি যখন একটি বিদেশী প্রতিষ্ঠান আর কাজসমূহ তুলনামূলক কম খরচে বা সস্তায় করার জন্য কাজ গুলো অন্যান্য উন্নয়নশীল দেশের প্রতিষ্ঠান বা জনশক্তির ব্যবহারের মাধ্যমে করে থাকে তাকে।
এরফলে একদিকে ক্লায়েন্ট যেমন কম খরচে কাজকরিয়ে নিয়ে লাভবান হয় অন্যদিকে উক্ত দেশেরও এর মাধ্যমে বৈদেশীক মুদ্রা আয় হয়। বর্তমানে ইন্টারনেটের যুগে আপনি ঘরেই ইন্টারনেটে বসে ফ্রি ল্যান্স কাজ করে আয় করতে পারেন। এধরনের ফ্রিল্যান্স আউটসোর্সিং কাজের সহায়তার জন্য বেস কিছূ সাইট গড়ে উঠেছে।
যেমনঃ
http://www.joomlancers.com – এতে শুধু ওপেনসোর্স কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম জুমলার কাজ পাওয়া যায়

www.getafreelancer.com – এই সাইটে রয়েছে ফ্রিল্যান্সারদের জন্য অসংখ্য কাজ। এখানে আপনি বিভিন্ন ক্যাটাগরির কাজ পাবেন যেমন ডাটা এন্ট্রি,ওয়েব ডেভলপমেন্ট, গ্রাফিকসডিজাইনিং, এনিমেশন সহ জুমলায় ওয়েবডেভলপমেন্টের কাজ।কাজ পেতে হলে আপনাকে প্রথমে উক্ত সাইটে রেজিষ্টার করতে হবে। তারপর আপনি করতে পারবেন এমন কাজ গুলোর জন্য বিড করতে হবে, বিড করলে ক্লায়েন্ট বুঝবে যে আপনি সেই কাজ করতে ইচ্ছুক , এখন ক্লায়েন্ট যদি আপনাকে সেই কাজের জন্য যোগ্য মনে করে তাহলে সে কাজটা আপনাকে করতে দেবে। আর সাধারন মেম্বারদের কাজ হতে প্রাপ্ত অর্থের ১০ শতাংশ সাইটটির সার্ভিস চার্জ হিসেবে দিতে হবে। তবে গোল্ড মেম্বারদের এই চার্জ নেই , তাদের শুধু মাসে ১২ ডলার দিতে হবে।
দেশীয় আইটি পত্রিকা কম্পিউটার জগতে এ বিষয়ে প্রচ্ছদ প্রতিবেদন দিয়েছে এখান থেকে দেখতে পারেন।কাজ করার পর এখান থেকে টাকা কয়েক ভাবে পাওয়া যাবে। একটি হল ব্যাংক টু ব্যাংক ওয়্যার ট্রান্সফার , যার জন্য আপনার কোন ব্যাংকে একটি সেভিংস এক্যাউন্ট থাকলেই হল। আরেকটি হল Payoneer ডেবিট কার্ড
এটি getafreelancer.com ই দিয়ে থাকে তবে এটি অর্ডার করতে হলে আপনার getafreelancer.com এর একাউন্টে কমপক্ষে 30$ থাকতে হবে। এই পদ্ধতিতে আপনি অর্থ কুব দ্রুত পৃথিবীর যেকোন স্থান থেকে এটিএম এর মাধ্যমে তুলতে পারবেন। কার্ড পাবার পর সেটি একটিভেট করতে কিছু টাকা খরচ হবে।

আমি এ নিয়ে একটি ফোরামে পোষ্ট করেছি । এখানে দেখতে পারেন